Breaking News

বাংলা শায়েরী

বাংলা শায়েরী নিয়ে আজকের এই লেখা। বন্ধুরা অনেক সময় বিভিন্ন ধরনের শায়েরী আপনারা খুজে থাকেন তাই কিছু বাংলা শায়েরী নিয়ে হাজির হলাম। আশা করি সবাই উপভোগ করবেন।

বাংলা শায়েরী

তুলসী তলায় সাঁঝের বেলায়, প্রদীপ যখন জ্বালো। দূর থেকে আমি চেয়ে দেখি তোমার রূপের আলো।

 

কণ্ঠে পরে ফুলের মালা, অভিসারে এসো প্রিয়ে। বসে আছি দুয়ার খুলে, শুধু তোমার পথ চেয়ে।

 

প্রেমে তোমার জড়িয়েছি, কেমনে বোঝাই বলো... একবার শুধু কাছে এসে ভালোবাসি বলো

 

প্রানের চেয়েও তোমায়, আমি ভালোবেসেছি। তাই তো প্রাণ উজাড় করে, তোমায় দিয়েছি।

 

দলটি হলো সবুজ, ফুলটি হলো লাল। তোমার আমার ভালোবাসা, থাকবে চিরকাল।

 

আরও পড়ুন: Bangla Shayari

 

যখন দারিদ্র দরজা দিয়ে প্রবেশ করে, প্রেম তখন জানালা দিয়ে পালায়।

 

তুমি আমার সুখের ময়না, তোমার হয়না কোনো তুলনা। তুমি আমার রঙিন স্বপ্ন, হাজার রাতের বাসনা। তুমি আমার ভালোবাসা, তুমি আমার সাধনা। তুমি আমার সুখ-দুঃখের সাথী, তাইতো বন্ধু তোমায় আমি এত ভালোবাসি।

 

আমায় তুমি কোনো দিন ভুলে যেও না। আর যদি ভুলে যাও, প্রাণে বাঁচবো না...

 

আজকে তোমায় শপথ করে বলতে হবে আগে, আমাদের এই ভালোবাসা চিরদিন কি রবে...

 

আমার উপর রাগ করলে, আমি যাবো কোথায় ?? তুমিই আমার সব কিছু গো, করো ক্ষমা আমায়।

 

বাংলা শায়েরী

মিষ্টি চাঁদের মিষ্টি আলো, বাসি তোমায় অনেক ভালো। মিটিমিটি তারার মেলা, দেখবো তোমায় সারা বেলা। নিশিরাতে শান্ত ভুবন, চাইবো তোমায় সারা জীবন...

 

আমি জানি তুমি আসবে, পূর্ণিমার চাঁদ হয়ে আমায় ছুঁয়ে দিতে। অথবা ভোরের কুয়াশা হয়ে আমায় সিক্ত করতে। আমি জানি তুমি আসবে, বিকেলের রংধনু দিয়ে আমায় রঙিন করতে, অথবা শীতের চাদর হয়ে আমায় উষ্ণতা দিতে। আমি জানি তুমি আসবে, শরতের কাশফুল হয়ে আমার মনটা দোলাতে, অথবা বৃষ্টির টুপটাপ শব্দে আমায় উদাসী করতে...

 

একটু যদি তাকাও তুমি, মেঘ গুলো হয় সোনা, আকাশ খুলে আছি তাও কেন দেখছ না। একই আকাশ মাথার উপর, এক কেন ভাবছ না, আকাশ খুলে বসে আছি তাও কেন দেখছ না।

 

কে বলে চাঁদকে স্পর্শ করা যায় না... আমি তো প্রতি দিনই তোমাকে ছুঁই...

 

মনে হয় শুধু আমি আর শুধু তুমি আর ওই আকাশের পৌষ নীরবতা.. রাত্রির নির্জন যাত্রী তারকার কানে কানে কতকাল কহিয়াছি আধো আধো কথা।

 

তোমাকে ভেবে পৃথিবী আমার অদেখা, তবু এঁকে যাই। আমার ভিতর শুধু তুমি, আর তো কিছু পাই না ঠাই...

 

আরও পড়ুন: রোমান্টিক প্রেমের শায়েরী

 

মনের মধ্যে প্রবাহমান ঝর্ণা, এনে দিলো ভালোবাসার বন্যা। ভাসিয়ে নিলো বিস্মৃতির ভেলা, শুরু হলো ভালোবাসার খেলা।

 

তোমায় আমি বলতে চাই, তুমি ছাড়া প্রিয় আমার আর কেহ নাই। ভালোবাসি শুধু তোমায় আমি, জনম জনম ভালোবাসতে চাই। জানাতে চাই তোমায় আমি, হৃদয়ে রয়েছ তুমি। তোমায় নিয়ে সারাক্ষন স্বপ্নের জাল বুনে যাই।

 

ভালোবাসি শুধু তোমায় আমি, জনম জনম ভালোবাসতে চাই। জানতে চাই আমি তোমার কাছে, তোমার কি প্রিয় হৃদয় আছে ???

আমার ডানা নেই, তাই উড়তে ইচ্ছে করে। পাখির হাত নেই, তাই লিখতে ইচ্ছে করে। তোমার মন নেই, তাই আমায় অবহেলা করতে ইচ্ছে করে।

 

পৃথিবীর সবচেয়ে আনন্দময় জিনিসগুলোর জন্য কিন্তু টাকা লাগে না। বিনা মূল্যে পাওয়া যায়... যেমন - জ্যোৎস্না, বর্ষার দিনের বৃষ্টি আর মানুষের ভালোবাসা।

 

বাংলা শায়েরী

তুমি আমার সৃষ্টি সীমার বাইরে হতে পারো, কিন্তু আমার হৃদয় থেকে দূরে নয়। তুমি আমার নাগালের বাইরে যেতে পারো, কিন্তু আমার মন থেকে নয়। আমি তোমার কাছে কিছু হতে না পারি !! কিন্তু তুমি আমার কাছে জীবনের সবকিছু।

 

শীতে দেবো তোমায় কুয়াশার চাদর। মিষ্টি রোদে পাবে তুমি, নতুন ভোর....

 

তোমার জন্য আমার শেষ অনুরোধ, পারলে ভালোবেসো... আমাকে নয়, অন্য কাউকে। তবে তোমার মতো করে নয়, আমার মতো করে... যাতে কোনো চাওয়া থাকবে না, থাকবে না কোনো প্রাপ্তি। থাকবে শুধুই প্রতীক্ষা....

 

মন দেখে ভালোবেসো, ধন দেখে নয়.. গুন দেখে প্রেম করো, রূপ দেখে নয়। রাতের বেলায় স্বপ্ন দেখো, দিনের বেলায় নয়... একজনকে ভালোবাসো, দশজনকে নয়....

 

ভালোবাসা কি ? -- তপ্ত মরুর বালুর শিখা। ভালোবাসা কি ? -- নদীর স্রোতে ভাসমান কোনো নৌকা। ভালোবাসা কি ? -- ভেসে আসা কোনো সুখের ভেলা। ভালোবাসা কি ? -- দুঃখের মাঝে হাসি মিশ্রিত কান্না। ভালোবাসা কি ? -- কোনো এক অজানা ঠিকানা। ভালোবাসা কি ? -- ভালোবাসা কাকে বলে...???

 

আরও পড়ুন: প্রেম নিয়ে স্ট্যাটাস

 

ভালোবাসার মানুষ যতই দূরে থাকুক না কেন, কখনো মনে হবে না সে দূরে আছে। যদি সে অনুভবে মিশে থাকে...

 

ভালোবাসা মানে আবেগের পাগলামি। ভালোবাসা মানে কিছুটা দুষ্টামি। ভালোবাসা মানে শুধু কল্পনাতে ডুবে থাকা, ভালোবাসা মানে অন্যের মাঝে নিজের অস্তিত্ব দেখা।

 

ভালোবাসার পরিমাপের একক হলো -- বিশ্বাস। একে ওপরের প্রতি যত বেশি বিশ্বাস থাকবে, তাদের ভালোবাসার পাল্লা ততো ভারী হবে...

 

সকাল বেলার সোনালী আলো, এক মনটা অনেক ভালো। কিচির মিচির ডাকছে পাখি, খুলে দেখো তোমার আঁখি। শুভ হোক আজকের দিন...

 

দেবো তোমায় লাল গোলাপ, স্বপ্নে গিয়ে করবো আলাপ। বলবো খুলে আমার কথা, মনে আছে যত ব্যাথা। বলবো তোমায় ভালোবাসি, থাকবো দুজন পাশাপাশি।

 

আকাশ ভরা লক্ষ তারা মিটিমিটি হাসে। ঘুমের ঘোরে স্বপ্নে দেখি, তুমি আমার পাশে।

 

রিক্তের দুয়ারে গড়িয়ে, যদি মনে পড়ে আমার নাম। ক্ষনিকের তরে দিও মোরে এই লেখার দাম।

আমি যদি চলে যাই জীবনের তরে.....

 

চাঁদ সুন্দর, ফুল সুন্দর, আরও সুন্দর তুমি। পৃথিবীতে দুটি প্রাণ, তুমি আর আমি।

 

শূন্য ছিল শীতল দীঘির, শীতল কালো জল... কেন তুমি ফোটালে সেথা ব্যথার নীল উৎপল।

 

অকারণে তুলসী গাছে, ঢেলে দিলাম জল... পুরিলো মনের আশা, না ধরিল ফল...

 

চোখে যদি অশ্রু আসে, রুমাল দিয়ে মুছিবে... বুকের রক্ত ঢেলে দিয়ে, আমায় ভালোবাসিবে...

 

জীবন প্রভাতে মনের মালাতে গেথে ছিলাম যত ফুল। আজ দেখি হায়, ফুল সে তো নয়, সবই জীবনের ভুল।

 

যে ফুল দিয়ে গাঁথবো মালা, আশা ছিলো মনে। সেই ফুল হারিয়ে আমি, ঘুরি বনে বনে।

 

রূপের তুলনা নাইকো তোমার, তুমি যে অপরুপা। কিছুতেই তো যায়না ভোলা, ক্ষনিকের সেই দেখা।

 

তোমার মুখে মিষ্টি হাসি, ভুলতে পারি নাই। তাইতো আমি তোমার আশায়, পথের পানে চাই।

 

তোমার আশায় বসে আছি, পথ পানে চেয়ে। আসবে কবে আমার কাছে, ওগো সোনা মেয়ে।

 

ট্রামে-বাসে দেখতে পাই, কত শত মেয়ে। কিন্তু তারা অপরুপা, নয়কো তোমার চেয়ে।

 

চোখে চোখে দু'জনায়, যেদিন দেখা হলো। পারলাম নাতো বলতে কিছু, অনেক বলার ছিল।

 

আরও পড়ুন: ভালোবাসার ছন্দ

 

রাতে শুয়ে ঘুম আসে না, ভেবে তোমার কথা। কবে তুমি আসবে বলো, আমার সাথে হেথা...

 

তোমার মতন পাশে যদি, পেতাম জীবনসাথী। আশা মোর পূর্ণ হতো, হতাম বেশি খুশি।

 

হাতে তোমার হাতটি দিলে, হৃদয় খুশি হয়। প্রেমের পরশ সোনার পরশ, একই মনে হয়।

 

তুমি আমার প্রেমের রানী, আমি প্রেমের রাজা। সেই প্রেমের স্বর্গে মোরা, রই যে একা একা।

 

আজকে চলো মোরা যাই সীমার বাঁধন ছাড়িয়ে। যেথা মোদের মন চায়, সেথা যাই হারিয়ে। যতই বাধা আসুক মোদের, কোনো কিছু মানবো না। যত কথাই বলুক লোকে কোনো কথা শুনবো না।

বিয়ের পর দু'জনাতে যাবো হানিমুনে। সেখানেতে মনের কথা, কইবো মনে প্রাণে।

 

পথের পানে চেয়ে চেয়ে দিন কেটে যায়। কখন তুমি আসবে ওগো, বলো না আমায়...

 

কত স্বপন দেখছি আমি, তোমায় নিয়ে মনে। কি যে হবে পরিণামে, ভাবছি সারাক্ষনে।

No comments